প্রথম প্রেমালাপ (শেষ হয়েও হলনা শেষ)

Updated: Jul 10, 2021



রনিত :- বাবাই দা চলো দেখিগা সবাই কি করছে ?

বাবাই :- সবাই না, বল ঝিলাম কি করছে ।

রনিত :- বুঝতেই যখন পারছো তখন দেরি না করে চলো।

বাবাই :- চল ।

[ এরপর বাবাই আর রনিত মামার বাড়িতে যাই, ভেবেছিলো ঝিলাম আর নুপুর ওখানেই থাকবে কিন্তু ওদের ওখানে দেখতে পাই না ।এদিকে বাবাই আর রনিতকে দেখতে পেয়ে সব দিদি আর ভাইরা ঠিক করে গানের লড়াই খেলবে ।যে কোনও অনুষ্ঠানে গানের লড়াই হবেই। তাই বাবাই আর রনিতকে কোথাও যেতে না দিয়ে ওদেরকে ওখানেই ধরে রাখা হয় । এদিকে ঝিলামের চোখ রনিতকে দেখতে চাই , এমন সময় ঝিলাম একটা গান শুনতে পাই ।]

ঝিলাম :- কে করছে এই গান ?

নুপুর :- দিদি বাড়ির ভেতর থেকে আসছে

ঝিলাম :- চল গিয়ে দেখি ।

[ এরপর ঝিলাম আর নুপুর বাড়ির ভেতর ঢুকল ।ঢুকে দেখলো সবাই গোল করে বসে আছে আর গানের লড়াই হচ্ছে। রনিতের গান শুনে ঝিলাম রনিতের প্রেমে পড়ে যাই ।ধিরে ধিরে রনিতের সুরে সুর মিলিয়ে ঝিলাম গান করতে শুরু করে যেটা রনিতের মন ছুয়ে যাই ।রনিত ঠিক করে যে সন্ধ্যের সময় যখন সবাই এইসাথে ঘুরতে যাবে তখন সে ঝিলামের কাছ থেকে ওর নাম্বারটা নেবে ]




[ সন্ধ্যের সেই ঘুরতে যাবার মুহূর্ত ]

রনিত :- ঝিলাম

ঝিলাম :- হ্যাঁ, কিছু বলবে ?

রণিত :- আসলে আমি শুনলাম তোমার কাছে পুজোর অনেক ভালো ভালো ছবি আছে। তুমি যদি কিছু মনে না করো তাহলে আমাকে কি সেই ছবি গুলো দেবে ?

ঝিলাম :- নিশ্চয় দেবো ।

রনিত :- থাঙ্ক ইউ ।তোমার কি কোনও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট আছে ?

ঝিলাম :- আছে ।ফেসবুক , হোয়াটস অ্যাপ, ইন্সটাগ্রাম সব আছে।

রনিত :- বাহ। তোমার হোয়াটস অ্যাপ নাম্বারটা কি পাওয়া যাবে ?

ঝিলাম :- নিশ্চয় ।

[ তবে রনিত এর আগে কোনও মেয়ের কাছ থেকে তার নাম্বার চাইনি তাই রনিত ঠিক করলো যে সে নিজে হাতে ঝিলামের নাম্বার সেভ করবে না, তাই সে ঝিলামকে নিজের ফোন টা দিয়ে বলল নাম্বারটা সেভ করে দিতে]

রনিত :- থাঙ্ক ইউ ঝিলাম

ঝিলাম :- ওয়েলকাম।

রনিত :- তোমাকে একটা কথা বলার আছে ।

ঝিলাম :- কি কথা ?

রনিত :- রাত্রে একবার ছাদে দেখা করতে পারবে ? তবে তুমি একা আসবে ।

ঝিলাম :- সে বুঝলাম কিন্তু কেন বলতো ?

রনিত :- সে তুমি দেখতেই পাবে।

[ এরপর রাত্রি ১২ টার সময় ঝিলামের ফোনে একটা ম্যাসেজ ঢোকে “ ছাদে তোমার জন্য অপেক্ষা করছি ”।ম্যাসেজ দেখে ঝিলাম ছাদে যাই এবং ছাদে গিয়ে দেখে রনিত দারিয়ে আছে আর ওর হাতে একটা গোলাপ ]

ঝিলাম :- বলো, কি বলবে ।

রনিত :- ঝিলাম সত্যি কথা বলতে আমার তোমাকে ভালো লেগেছে ,জানিনা এটা ভালোবাসা নাকি তবে তোমাকে দেখার পর থেকে তোমার কাছাকাছি থাকতে ইচ্ছা করে ।হয়তো তোমাকে আমার মনের কথা বলতে পারতাম না কিন্তু তোমার চোখে আমি আমার জন্য ভালোবাসা দেখেছি তাই সাহস পেলাম ।

ঝিলাম :- ঠিক বলেছো। তোমাকে প্রথম দেখার পর ভেবেছিলাম তোমার সাথে ফ্লার্টিং করবো কিন্তু যখন তোমার গান শুনলাম কেনো জানিনা তোমার প্রেমে পড়ে গেলাম ।আমিও চাইছিলাম তোমার কাছে নিজের মনের কথাটা বলবো । ভালো করলে তুমি বললে ।

[ রনিত তখন নায়কের মতো বসে ঝিলামকে গোলাপ দিয়ে বলল ]

রনিত :- আই লাভ ইউ ঝিলাম ।

ঝিলাম :- আই লাভ ইউ টু রনিত ।

[ তারপর রনিত ঝিলামের কোমরে হাত দিয়ে ঝিলামকে নিজের কাছে টেনে নিলো আর ঝিলামের ঠোঁটে ঠোঁট লাগিয়ে কিস করতে থাকে সেই মুহূর্তে ছাদের লাইটটা অফ হয়ে যাই ।হয়তো ভগবান চেয়েছিল ওদের সেই রোমান্টিক মুহূর্তটা বাকিদের চোখের আড়ালে ঘটুক। ]


এবার ঝিলাম আর রনিত প্রেম করুক আর ওদেরকে ডিস্টার্ব করবো না ।


-সমাপ্ত-


9 views0 comments